আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন আফ্রিদি

পাকিস্তানের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। এ ঘোষণার সুবাদে ২১ বছরের দুর্দান্ত ক্যারিয়ারের ইতি টানলেন অলরাউন্ডার শহিদ আফ্রিদি। এর আগে ২০১০ সালে টেস্ট ও ২০১৫ বিশ্বকাপে ওয়ানডে ক্রিকেটকে বিদায় বলেছিলেন আফ্রিদি। এবার তিনি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটেরও বিদাই ঘোষণা দিলেন।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন আফ্রিদি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন আফ্রিদি

ভারতে অনুষ্ঠিত ২০১৬ সালে টি-২০ বিশ্বকাপে আফ্রিদি সর্বশেষ পাকিস্তানের হয়ে খেলেছিলেন। সেবার দলটির পারফরম্যান্স খারাপ হওয়ায় নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় তাকে। তার অধীনে পাকিস্তান ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপও খেলেছিল।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে খেলা ছাড়লেও এই ক্রিকেট নিয়ে ভবিষ্যতে কাজ করবেন বলে জানান ৩৬ বছর বয়সী আফ্রিদি। পাকিস্তান সুপার লিগে পেশোওয়ার জালমির হয়ে ২৮ বলে ৫৪ করার পর তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় বলছি। আমি আমার ভক্তদের জন্যই খেলি। আর এই টুর্নামেন্টেও হয়তো আরও দুই বছর খেলে যাবো। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায়।’

‘বুম বুম’ নামে পরিচিত আফ্রিদি ১৯৯৬ সালে নিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচেই বিশ্ববাসীকে তাক লাগিয়ে দেন। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩৭ বলে সেঞ্চুরি করে গড়েন বিশ্ব রেকর্ড। যা পরবর্তীতে একটানা ১৮ বছর টিকে ছিল।

ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় পর্যায়ে এসে শহিদ আফ্রিদি নিজেকে লেগ স্পিনার অলরাউন্ডার হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেন। তার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকাতে পাকিস্তান ২০০৯ টি-২০ বিশ্বকাপ ঘরে তোলে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন আফ্রিদি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন আফ্রিদি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বিদায় নিলেন আফ্রিদি

ডানহাতি হার্ডহিটার এ ব্যাটসম্যান ক্যারিয়ারে ২৭টি টেস্ট খেলেছেন। যেখানে শহিদ আফ্রিদি ১ হাজার ১৭৬ রানের পাশাপাশি ৪৮টি উইকেট নিয়েছেন। ব্যাটিংয়ে শহিদ আফ্রিদির সেরা স্কোর ১৫৬। তবে দীর্ঘ ক্যারিয়ার জুড়ে ৩৯৮টি ওয়ানডে খেলেছেন। যেখানে শহিদ আফ্রিদি আট হাজারের বেশি রান করেছেন আর পেয়েছেন ৩৯৫ উইকেট।

টি-২০ ক্রিকেটের প্রথা চালু হওয়ার পর এই ফরম্যাটেও বেশ সফল ছিলেন আফ্রিদি। খেলেছেন ৯৮টি ম্যাচে। যেখানে তার রান ১ হাজার ৪০৫ আর উইকেট নিয়েছেন ৯৭টি।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *